সূর্যের আলো ফিরিয়ে দেয়ার ক্ষমতা হারাচ্ছে পৃথিবী।The earth is losing its ability to return sunlight.

সূর্যের আলো


সৌরজগতের একমাত্র গ্রহ পৃথিবী যেখানে প্রাণের অস্তিত্ব আছে। অক্সিজেন সমৃদ্ধ এই গ্রহ কিন্তু অতীতে এমন টা ছিল না। ভবিষ্যতেও এমনটা থাকবে না বলে পূর্বাভাস দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। অতিরিক্ত মিথেন নিঃসরণ আর স্বল্প অক্সিজেনের প্রাণের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখা কঠিন হয়ে পড়বে পৃথিবীর জন্য। বিবর্ণ হতে শুরু করবে সবুজ আর নীল গ্রহ। কোটি বছর পরে সৌরজগতের এই গ্রহে প্রাণের কোনো অস্তিত্বই থাকবে না। এমন পূর্বাভাস দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। 

বিজ্ঞানীরা জানান 240 কোটি বছর আগে পৃথিবী যেমন ছিল তেমন রূপ ধারণ করবে। পৃথিবীতে আর প্রাণের অস্তিত্ব থাকবে না মানুষ তো থাকবেই না থাকবে না অন্য কোন উদ্ভিদ বা প্রাণের অস্তিত্ব। যত দিন যাচ্ছে ততই মানুষের বাসের অযোগ্য হয়ে উঠছে এই পৃথিবীর সবকিছু এখন স্বাভাবিক সুন্দর মনে হলো। এমন দিন আসবে যখন পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে শ্বাস নেয়ার মতো বাতাসে অক্সিজেন থাকবেনা। আদু পৃথিবীকে ঘিরে থাকবে না কোন বায়ুমণ্ডল। সূর্যের প্রচণ্ড তাপে এবং ক্ষতিকর বিকিরণের ধংশ যাবে ওজন স্তর। অক্সিজেন নির্ভর প্রাণের পক্ষে টিকে থাকা যেমন সম্ভব হবে না তেমনি অসম্ভব হয়ে পড়বে উদ্ভিদের সালোকসংশ্লেষণ। মানুষ তো বটেই অল্পকিছু অনুজীব ছাড়া কোন প্রাণী বা উদ্ভিদ বাঁচতে পারবে না এই গ্রহে। 

240 কোটি বছর আগে পরিস্থিতি এরকম ছিল পৃথিবী আবার আগের অবস্থায় ফিরে যাবে। পৃথিবীতে তখন ভরে যাবে অত্যন্ত বিষাক্ত মিথেন গ্যাসে। পৃথিবীতে অক্সিজেনের পরিমাণ গ্রীন হাউজ এর কারণে পৃথিবী আবার পূর্বের অবস্থায় ফিরে যাবে। অক্সিজেনের ওপর প্রতি সেকেন্ডে মানুষ আর প্রাণীরা নির্ভরশীল কোটি বছর পর আর এই অক্সিজেন থাকবেনা পৃথিবীতে। পৃথিবী হয়ে যাবে মঙ্গল এর মত পাথর। একটি গ্রহ সমুদ্রের পানি বাষ্প হয়ে যাবে সূর্যের তাপ বাড়ছে বাড়ছে পৃথিবীতে কার্বন-ডাই-অক্সাইড পৃথিবী রক্ষা করা ওজন স্তর ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত ওজন স্তর না থাকলে সূর্যের তাপ পৃথিবীতে প্রকাশ্যে কোনো বাধা থাকবে না। 200 কোটি বছরের মধ্যেই পৃথিবীর সমুদ্র গুলো শুষে নেবে সূর্য। কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে অক্সিজেন এত আশঙ্কাজনক হারে কমে যাবে পৃথিবীতে কোন প্রাণী বেঁচে থাকবে না। 
নাসার নেক্সাস 4 এক্সোপ্ল্যানেট সিস্টেম সাইন্সের গবেষণায় উঠে এসেছে এসব তথ্য। গবেষণা বলছে পৃথিবীতে শুধু অনুজীব টিকে থাকবে ওজন স্তর না থাকলে পৃথিবীর আর কোন প্রাণীর যৌন বাসযোগ্য থাকবেনা। জলবায়ু পরিবর্তন যদি নিয়ন্ত্রণের বাইরে থাকে আগামী 100 কোটি বছরের মধ্যেই পৃথিবী অক্সিজেন শূণ্য হয়ে যাবে। কার্বন-ডাই-অক্সাইডের ঘাটতি হলে গাছের জন্য টিকে থাকা ও কষ্ট হবে গাছ পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারবেনা।

এই রকম অজানা তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইট Clickoffice.club এর সাথেই থাকুন।

*

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন